Thursday, July 17, 2008

"সচলায়তন" নিয়ে উদ্বেগ

সমস্যা কিছু একটা হয়েছে- কি সেটা এখনো স্পষ্ট নয়। তবে এই ধোঁয়াশার মাঝে পড়ে মনে হচ্ছে, আমাদের অতি প্রিয় "সচলায়তন" ব্যান করা হয়েছে বাংলাদেশ থেকে!

নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত সচলায়তন সাইটের নির্মাতারা যথেষ্ট ধৈর্য্যের পরিচয় দিয়ে যাচ্ছেন। আমরা সাধারন ব্লগার-লেখক-পাঠকরা অস্থির হয়ে আছি, কিন্তু তারা নিশ্চিত না হয়ে কিছু বলছেন না। কিন্তু এটা নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে যে বাংলাদেশ থেকে www.sachalayatan.com সাইটে ঢোকা যাচ্ছে না। মূল সার্ভারের সাথে যোগাযোগ করা হয়েছে, সেখানে তো কোন সমস্যা নেই! এবং বাংলাদেশ ছাড়া আর অন্য সব দেশ থেকেই সচলায়তনে ব্রাউজ করা যাচ্ছে। কাজেই এটা অবশ্যই সাধারণ টেকনিকাল সমস্যা না। তো?

কেন এরকম হচ্ছে বুঝছি না। কেমন গোমট বেঁধে আছে সব। কোন কিছুতে মন বসানো যাচ্ছে না। মনে প্রানে চাইছি যা ভাবছি তা সত্যি না হোক। কিন্তু সেই সম্ভাবনাই যে প্রবল! বাংলাদেশ কোন পথে এগুচ্ছে তাহলে? ইন্টারনেটে বসে মুক্তমনে নিজের কথাগুলো বলাও কি বন্ধ করার পাঁয়তারা চলছে?

খুব দ্রুত অবসান ঘটুক এই ধোঁয়াশার। আমাদের ভীষন প্রিয় "সচলায়তন" আগের মত সচল হয়ে উঠুক বাংলাদেশে।

------------------------------------------------------------------------------
অনেক অনিশ্চয়তা এবং প্রশ্নের পরে এই মুহুর্তে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গিয়েছে যে, বাংলাদেশে "সচলায়তন"-এর দু'টি পোর্ট ব্লক করা হয়েছে।

5 comments:

অগ্নি said...

দু:খজনক, সত্যি দু:খজনক। এটা মেনে নেয়া যায় না। কোনমতেই না।

নিঘাত সুলতানা তিথি said...

বাংলাদেশের ব্লগারদের সবভাবে জানানোর চেষ্টা চলছে যে অনেকগুলো প্রক্সি লিংক ব্যবহার করে সচলায়তন পড়া যাচ্ছে। তারা একটা পোর্ট বন্ধ করলে আমরা অন্য বিকল্প রাস্তায় ঘুরব। একটা প্রক্সির লিংক দিচ্ছি, এখান থেকে সহজে সচলায়তন ব্রাউজ করা যাবে।

http://www.phproxy.org/

বাংলাদেশের সচলায়তনের ব্লগার, পাঠক, শুভানুধ্যায়ীদের বলছি- যতদিন সচলায়তন আগের মত চালু না হচ্ছে চলুন আমরা আমাদের মত করে সচলায়তনকে সচল রাখি।

আরেকটা লিংক দিচ্ছি, এখানে অনেকগুলো প্রক্সি সার্ভারের লিংক আছে।
http://chitkar.blogspot.com/2008/07/blog-post.html

toxoid_toxaemia said...

খুব মেজাজ খারাপ হয়েছিল খবরটা শোনার পর। অসহায়বোধ করতে শুরু করেছিলাম। তবে সচলকে এভাবে কখনোই পঙ্গু করে দিতে পারবেনা কেউ। এসব অশুভ শক্তিকে আমরা যেকোন মূল্যে বাঁধা দেবই। আরেকটা প্রক্সি সার্ভারের লিঙ্ক দিলাম, আমার বেশ পছন্দের এটি।

www.proxybrowse.biz

sadiphasan said...

খাদ্য মানুষের বেঁচে থাকার প্রধান উৎস। তাজা বা টাটকা খাবার আমাদের মন এবং দেহকে সুস্থ ও সতেজ রাখে। বর্তমানে তাজা বা টাটকা সবজি বা মাছ খোঁজে পাওয়া খুব কষ্টের। আপনি কি সামুদ্রিক মাছ, গলদা চিংড়ি, চিংড়ি, তাজা জল-মাছ, কাঁকড়া, ইত্যাদি দরণের মাছ খোঁজ করছে? তাহলে ভিজিট করুন freshfishbd.

kaisarahmed said...

খাদ্য মানুষের বেঁচে থাকার প্রধান উৎস। তাজা বা টাটকা খাবার আমাদের মন এবং দেহকে সুস্থ ও সতেজ রাখে। বর্তমানে তাজা বা টাটকা সবজি বা মাছ খোঁজে পাওয়া খুব কষ্টের। আপনি কি সামুদ্রিক মাছ, গলদা চিংড়ি, চিংড়ি, তাজা জল-মাছ, কাঁকড়া, ইত্যাদি দরণের মাছ খোঁজ করছে? তাহলে ভিজিট করুন freshfishbd.