Saturday, June 29, 2019

ম্যাজিকাল মোমেন্ট

প্রতিবার জন্মদিনের আগে আমাদের কমন প্রশ্ন হচ্ছে - 
এবারের জন্মদিনে কি চাস”? 
উত্তরটা  কমন দুজনের তরফ থেকেই
"কিচ্ছু চাই না আমি" ব্র্যাকেটে "আজীবন ভালোবাসা ছাড়া! "
এবার যখন এই প্রশ্ন এলোতখন আমি মাসরুফ হোসেন এর "আগস্ট আবছায়াপড়ছি। জানিও না কোন ফাঁকে দুম করে বলে ফেললাম
"শেলীর কবিতার বই পড়তে চাই।"
একটা কিছু উত্তর পেয়ে সে বেশ নড়েচড়ে বসলো
"আর"? 
"শেলী যদি পড়ি তাহলে কিটসও পড়তে চাইবাবার মুখে দুই জনের কথাই শুনেছি।"
"চমৎকার। আর?"
আমাকে তখন ভুতে পেয়েছে কিনা জানিনাআমি বলে যাচ্ছি -
"রবার্ট ফ্রস্টের কবিতা এখানে ওখানে পড়েছিখুবই ভালো লাগে কিন্তু আমার বই নাই" 
"আচ্ছা!" 
এবার সে মিটি মিটি হাসছে। "আমার কলিগ তার দেশে (পশ্চিম বঙ্গযাচ্ছে। দুটো বই নিয়ে আসতে পারবে আমার জন্য বলেছে। দুটোর মধ্যে একটা আপনি পছন্দ করতে পারেন"
আমার মাথায় তখন কবিতা ছাড়া কিচ্ছু নেই। বললাম,
"শ্রীজাতশ্রীজাতশ্রীজাত' কবিতার বই"

এবার আমরা দুজনই হেসে ফেললাম। আমারটা বেশ "লজ্জা লজ্জা‘ হাসি আর তার টা হল ‘সন্তুষ্ট‘ হাসি। 
তিনি ঢুকে গেলেন Amazon-এ। ট্রাম্প আর হ্যারি পটারের দেশ থেকে তিনটে আর বাকি দুটো এলো কলকাতা থেকে। 

পুনশ্চনাকবিতা পড়ার প্রহর কিন্তু আলাদা করে আসেনি। জীবন তো আসলে পদ্যময় নয়। অযাচিত অপ্রত্যাশিত অভিজ্ঞতায় ভরা এক একটা ক্লান্তিকর দিনআর অতি অভ্যস্ত একঘেয়ে এই জীবনে মানুষ সম্ভবত বাঁচেই হঠাৎ পাওয়া খুব প্রেশাস এক একটা মুহূর্তের জন্য। সেই ম্যাজিকাল মোমেন্ট কখনো আপনি এসে ধরা দেয়। আর কখনো বা নিজেকেই সেটা তৈরি করে নিতে হয়। আর নিজের অজান্তেই আজকের প্রতিটা তুচ্ছ মুহুর্তও পরিণত হয়ে রূপ নেয় অন্য একটা অস্তিত্বেআদর করে যার নাম আমরা দিয়েছি, "স্মৃতি" "ম্যাজিকাল মোমেন্টতখন হয়ে ওঠে "ম্যাজিকাল মেমোরি" 

পুন:পুনশ্চছবিটা আমার জন্য বিশেষ তাৎপর্যময় হয়ে রইলো। এক ছবিতে আমার সবচেয়ে প্রিয় (প্রায়সব এলেমেন্ট ঢুকে পড়েছে। 

No comments: